• Home »
  • VISA »
  • ভিসা অভিজ্ঞতাঃ শিশির সাকিব, ৬ই মার্চ, ২০১৮

ভিসা অভিজ্ঞতাঃ শিশির সাকিব, ৬ই মার্চ, ২০১৮

 

ভিসা সাক্ষাৎকার এর দিন ৯ঃ৩০ এ আমার টাইম থাকলেও ১০.৩০ এর দিকে ডাক পড়ল। কাউন্টার ৪ এ এক অল্প বয়সী ভদ্র মহিলা ছিলেন আমার ভিসা অফিসার । উনার ব্যাবহার অনেক ভাল ছিল। প্রথমে অরিজিনাল সহ সব ডকুমেন্টস দেই। তারপর কিছু প্রশ্ন করলেন……

প্রশ্নের তালিকাঃ

১। কোন ইউনিভার্সিটি?
২।কত ক্রেডিট?
৩।আপনার ব্যাচেলর এর বিষয় কি ছিল?
৪।মেজর কি ছিল?

এরপরে আঙুলের ছাপ নিলেন এবং ৭৪০০ টাকা দিতে বললেন।

৫।কেন জার্মানি ?
৬।আপনার কোর্সের প্রথম সেমিস্টারে কি কি সাবজেক্ট পড়বেন?
৭।এম আই এস বলতে কি বুঝেন?
৮। ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট কি?
৯। আপনার ব্যাচেলর এর সাথে মাস্টার্স এর সাবজেক্ট এর মিল কি ভাবে?
১০। আপনি কি অন্য কোন ইউনিভার্সিটি থেকে অফার লেটার পেয়েছেন?সম্পর্কিত ছবি

আচ্ছা ঠিক আছে আমাদের ডিসিশন জানাতে ৬-৮ সপ্তাহ সময় লাগতে পারে।

আলহামদুলিল্লাহ। ২৮ দিন পরে আজ ভিসা পেলাম। আর ভিসা পাবার খুশিটা দ্বিগুণ হয়ে গেল যখন এমব্যাসি থেকে আমার অত্যন্ত প্রিয় একজন স্যার (জার্মান ভাষা) এর কাছ থেকে ভিসা গ্রহণ করলাম। উনাকে এমব্যাসিতে দেখে আমি চমকে গিয়েছিলাম।

ইউনিভার্সিটিঃ Otto-von-Guericke University Magdeburg
বিষয়ঃ International management, marketing, Entrepreneurship

লেখকঃ শিশির সাকিব। Image may contain: 1 person

#BSAAG_Visa

 

ছবিঃ ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত।

Print Friendly, PDF & Email