• Home »
  • F.A.Q.s »
  • অক্টোবর, ২০১৪ থেকে জার্মান ভিসার আবেদনের নতুন নিয়ম

অক্টোবর, ২০১৪ থেকে জার্মান ভিসার আবেদনের নতুন নিয়ম

 

নতুন নিয়ম ১’লা অক্টোবর ২০১৪ থেকে কার্যকর

জার্মানিতে আসতে চাওয়া ছাত্রদের জন্য দুই রকমের ভিসা প্রযোজ্য,

-সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি

-যাদের সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি নয় প্রথমে ভাষার জন্য কোর্স করতে হবে।

  1. যাদের ভাষা কোর্সের দরকার নেই, সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি তাদের যা করনীয়ঃ
  • বৈধ পাসপোর্ট সাথে আগের সকল পাসপোর্ট এবং সদ্য তোলা ২ কপি পাসপোর্ট ছবি।

বি.দ্র. ছবি অবশ্যই ছয় মাসের বেশি পুরনো হওয়া চলবে না।

  • যথাযথ ভাবে পূরণ কৃত দুইটি ফর্ম।  সকল আসল সনদ সাথে দুই কপি করে ফটোকপি।

বি.দ্র. ফর্মে উল্লেখিত ফোন নাম্বার এবং ইমেইল অবশ্যই সঠিক হতে হবে।

  • জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় এর প্রদত্ত মূল ভর্তির কাগজ যেটাতে অবশ্যই কোন বিষয়ে পড়তে যাবে তার উল্লেখ থাকবে।
  • জার্মান ব্যাঙ্কে একটা ব্লক অ্যাকাউন্ট যাতে অবশ্যই প্রথম বসরের চলার টাকার সমপরিমান ৭৯০৮ ইউরো থাকতে হবে। এখানে বৃত্তি অথবা জার্মান আইন (Sections 66, 68 of the German Residence Act) অনুযায়ী ভরন পোষণের প্রতিশ্রুত ঘোষণা পত্র থাকতে হবে।
  • স্বাস্থ্য বিমা ৯০ দিনের জন্য অবশ্যই তা হতে হবে এম্বাসি ও Schengen রাজ্যের দ্বারা অনুমদিত।
  • সকল প্রাতিষ্ঠানিক ফলাফল সমূহ এবং  কোন অসম্পূর্ণ কোর্সের সম্পূর্ণ ফলাফল থাকে সেগুলো সহ।
  • আন্তর্জাতিক মান সম্পূর্ণ ইংরেজির সনদ। (e.g. IELTS, TOEFL, TOEIC, TELC, CPE)
  • প্রযোজ্য ক্ষেত্রেঃ আন্তর্জাতিক ভাবে স্বীকৃত জার্মান ভাষার সনদ বি-১ পর্যন্ত এবং  চারটি ক্ষেত্রে পারদর্শিতা থাকতে হবে। যদি জার্মান ভাষায় পারদর্শিতার প্রয়োজন হয়।
  • অন্যান্য কাগজ পত্র প্রয়োজন বোধে আপনাকে ভিসা অফিসার এম্বাসি থেকে জানানো হবে।

2. যাদের সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি নয় প্রথমে ভাষার জন্য কোর্স করতে হবে

  • উপরের সকল কাগজ পত্র সাথে ভাষা কোর্সে ভর্তির চিঠি অথবা  “Studienkolleg” এর কাগজ।
  • ঐচ্ছিক  কাগজ জার্মান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির,

-শর্ত সাপেক্ষে ভর্তির প্রস্তাব পত্র।

-“uni-assist e.V.” এর চূড়ান্ত নিশ্চিত পত্র।

দয়া করে নিচের অংশ টুকু ভাল করে পড়ুন গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনার জন্যঃ

১। ভিসার ক্ষেত্রে কোন আইনই দাবি করা যাবে না। চূড়ান্ত সিধান্ত এম্বাসি দিবে।

২। যে ভিসা ফি প্রদান করা হয় ভিসা আবেদনের সময় সেটা শুধু আবেদন এর প্রক্রিয়া এর জন্য। প্রাতিষ্ঠানিক কাগজ যাচাই বাছাই এর কাজের জন্য আলাদা ফি দিতে হবে।

৩। বিদেশ গমনের অন্তত আট সপ্তাহ আগে আবেদন ফর্ম পূরণ করতে হবে।

৪। প্রার্থী অবশ্যই তার প্রদত্ত ফোন নাম্বার এবং ইমেইল এর মাধ্যমে পাওয়া যেতে হবে, যাতে করে তার ভিসা এর শেষ পর্যায় পর্যন্ত যোগাযোগ করা যায়।

অনুবাদটিতে কোন রকমের ভুল হলে আমাকে ক্ষমা করবেন। আশা করি আপনি একটু হলেও এর থেকে উপক্রিত হবেন। আর আমাকে ধন্যবাদ দেওয়ার কিছু নেই, আপনার প্রার্থনায় আমাকে মনে করবেন এবং আমার জন্য দোয়া করবেন এটুকুই শুধু আশা।

লেখকঃ জার্মান এম্বাসি

অনুবাদকঃ মোহাম্মাদ অলি আল ইসলাম

Print Friendly, PDF & Email