• Home »
  • Bachelors »
  • জার্মানিতে বাড়ছে বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা

জার্মানিতে বাড়ছে বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা

 

শিক্ষা বিষয়ক জার্মানির আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা ডিএএডি’র হিসেবে, ২০১১ সালে প্রথমবারের মতো বিদেশি শিক্ষার্থী নিবন্ধনের সংখ্যা আড়াই লাখ ছাড়িয়ে গেছে৷

ডিএএডি’র সাম্প্রতিক এক হিসেবে দেখা গেছে, ২০১১ সালে জার্মান বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে নিবন্ধিত মোট শিক্ষার্থীর ১১.৪ শতাংশ বিদেশি৷ এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থী এসেছেন চীন থেকে৷ তাদের সংখ্যা ২২ হাজার ৮২৮ জন৷

জার্মানি ও চীনের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে প্রায় সাড়ে সাতশো সহযোগিতামূলক চুক্তি রয়েছে৷ এর মাধ্যমে যে শুধু শিক্ষার্থী, বিজ্ঞানী ও গবেষক বিনিময় হচ্ছে তা নয়, দুই দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে পাঠদান কর্মসূচিরও বিনিময় হচ্ছে৷

চীনের বেইজিং বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক চেন হিংজি বলছেন, গবেষণা ক্ষেত্রে স্বাধীনতা, নিয়মতান্ত্রিক ব্যবস্থা থাকার কারণে গবেষক ও শিক্ষার্থীদের কাছে প্রিয় জার্মানি৷

Szene auf dem Hamburger Hauptbahnhof, aufgenommen am Samstag (18.07.2009). Foto: Bodo Marks dpa/lnoপ্রতি বছর জার্মানিতে বাড়ছে বিদেশি শিক্ষার্থীর আনাগোনা
.

চীন ছাড়াও রাশিয়া, বুলগেরিয়া, পোল্যান্ড ও অস্ট্রিয়া থেকেও অনেকে পড়তে আসছেন জার্মানিতে৷

ডিএএডি বলছে, তিনটি ইংরেজি ভাষা প্রধান দেশ যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার পরজার্মানি এখন বিদেশি শিক্ষার্থীদের কাছে আকর্ষণীয় গন্তব্য৷

বিশ্ব আর্থিক মন্দায় যখন বেশিরভাগ দেশের অবস্থা সঙ্গিন, সেখানে জার্মানির অবস্থা মোটামুটি ভাল৷ তাই পড়াশোনা শেষে চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকায় বিদেশি শিক্ষার্থীদের কাছে পছন্দের তালিকায় থাকছে জার্মানির নাম৷ সেই সঙ্গে বিদেশিদের আকৃষ্ট করতে জার্মান সরকারের নেয়া কিছু অনুকূল পদক্ষেপও এর একটা কারণ৷ যেমন পড়াশোনা শেষে চাকরি খোঁজার ক্ষেত্রে আগের চেয়ে নিয়ম সহজ করেছে জার্মান কর্তৃপক্ষ৷ তাছাড়া বিদেশিদের চাকরি দেয়ার ক্ষেত্রেও এখন জার্মানি অনেক উদার৷

‘ব্লু কার্ড’ ব্যবস্থা চালু হওয়ার কারণেও অনেকে এখন জার্মানিতে পড়তে আসতে আগ্রহী হচ্ছে৷ এর ফলে জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করার পর চাকরি খোঁজা ও বসবাসের নিয়ম অপেক্ষাকৃত সহজ হয়েছে৷

[youtube_sc url=”http://www.youtube.com/watch?v=x5lL0wpr-88″]

এতোদিন জার্মানিতে পড়াশোনার ক্ষেত্রে ভাষা একটা বড় সমস্যা ছিল বিদেশিদের কাছে৷সেক্ষেত্রেও কিছুটা ছাড় দিচ্ছে জার্মানি৷ অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন ইংরেজিতে পড়াশোনার সুযোগ দেয়া হচ্ছে৷ এছাড়া প্রখ্যাত ‘কার্লসরুয়ে ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি‘ বা কেআইটি’তে একটা বিশেষ সফটওয়্যারের পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু হয়েছে৷ এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে জার্মান ভাষায় দেয়া অধ্যাপকদের লেকচারগুলো প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই শিক্ষার্থীর ল্যাপটপে ইংরেজি ভাষায় অনুবাদ হয়ে যায়৷ যেভাবে আমরা ইংরেজি সাবটাইটেল থাকা সিনেমার ক্ষেত্রে দেখে থাকি৷

ARCHIV - Der Sitz des Deutschen Akademischen Austausch Dienstes (DAAD) in Bonn, aufgenommen am 07.08.2009. Im Zuge der Globalisierung wird auch das Studium internationaler - «Internationalisierung» von Forschung, Lehre und Studium lautet das Schlagwort, das auch für den DAAD Leitbild ist. Der DAAD ist die Schaltzentrale, wenn es um ausländische Studenten und auch junge Wissenschaftler geht, die für Deutschland interessiert werden sollen oder auch um deutsche Studenten, die sich im Ausland umsehen sollen. Für beide Seiten vergibt er auch Stipendien. Foto: Oliver Berg dpa/lnw (zu lnw-Korr Neu in Istanbul und auch im Irak: DAAD weltweit aktiv vom 21.08.2009) +++(c) dpa - Bildfunk+++বন শহরে অবস্থিত ডিএএডির কার্যালয়
.

কেআইটি’র আলেকজান্ডার ভাইবেল গত ২০ বছর ধরে এই সফটওয়্যারের উপর কাজ করে যাচ্ছেন৷ তিনি বলেন, শুধুমাত্র ভাষাগত সমস্যার কারণে কেআইটি অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী হারাচ্ছে৷ সেই সমস্যা দূর করতেই এই সফটওয়্যার তৈরির কাজ শুরু হয়েছিল৷ বর্তমানে চারটি কোর্স পড়ানো হচ্ছে এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে৷ ভবিষ্যতে সবগুলো কোর্স এর আওতায় আনা হবে৷

২০১০ সালে প্রথম বর্ষে বিদেশি শিক্ষার্থী নিবন্ধনের সংখ্যা ছিল ৬৬,৪০০ জন৷ যেটা আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি৷

জার্মানিতে পড়তে আসা বিদেশিদের প্রায় অর্ধেক আসে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে৷ এর মধ্যে রাশিয়া, বুলগেরিয়া আর পোল্যান্ড উল্লেখযোগ্য৷ তবে ইদানিং পশ্চিম ইউরোপের দেশ যেমন অস্ট্রিয়া, ফ্রান্স ও স্পেন থেকেও অনেক শিক্ষার্থী আসছেন পড়তে৷ শিক্ষার্থী আসছে গ্রিস থেকেও৷

এশিয়ার দেশগুলো থেকেও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ছে জার্মানিতে৷ যেমন এক হিসেবে দেখা গেছে, ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষে ভারত থেকে জার্মানিতে পড়তে গেছেন ৫,০৩৮ জন৷ তার আগের বছর যেটা ছিল ৪,০৭০ জন৷

তবে শুধু যে জার্মানিতে বিদেশিরা পড়তে আসছেন তা নয়৷ জার্মান শিক্ষার্থীদেরও বিদেশে গিয়ে পড়ার সংখ্যা বেড়েছে৷ ২০০৯ সালে এক লক্ষ ১৫ হাজার পাঁচশো জার্মান শিক্ষার্থী বিভিন্ন দেশে পড়তে যায়৷

জেডএইচ / এসবি (ডিএএডি, ইন্টারনেট)

সোর্সঃ dw.de

Print Friendly, PDF & Email