• Home »
  • BSAAG »
  • নকলের অভিযোগের পর পদত্যাগ করলেন শিক্ষামন্ত্রী

নকলের অভিযোগের পর পদত্যাগ করলেন শিক্ষামন্ত্রী

 

জার্মান শিক্ষা ও গবেষণা মন্ত্রী আনেটে শাভান পদত্যাগ করেছেন৷ প্রথমে তাঁর ৩০ বছরের বেশি আগে লেখা ডক্টরেট থিসিসে নকলের অভিযোগে তাঁর ডক্টর উপাধি গেল৷ এবার মন্ত্রীত্ব ছাড়তে হল তাঁকে৷

তিনি পদত্যাগ করলেন, যা-তে যে পদটি তিনি অলঙ্কৃত করছিলেন, তার কোনো হানি না ঘটে, চ্যান্সেলরের দপ্তরে তাঁর সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে বলেছেন শাভান৷ সাত বছর ধরে তিনি ফেডারাল শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন৷ ৫৭ বছর বয়সি সিডিইউ রাজনীতিক তাঁর ডক্টরাল থিসিস সংক্রান্ত সমালোচনা প্রত্যাখ্যান করেছেন এই বলে: ‘‘আমি নকল করিনি এবং ধাপ্পাও দিইনি৷”

আনেটে শাভানের সেই থিসিস

শাভান ড্যুসেলডর্ফ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে মামলা করবেন, তাঁর ডক্টর উপাধি বাতিল করা হয়েছে বলে৷ পরীক্ষকদের বিচারে তিনি নিয়মিতভাবে এবং জেনেশুনে নকল করেছেন৷ এ-তে তিনি খুবই আহত, বলেছেন শাভান৷ তবে একজন শিক্ষামন্ত্রী যখন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেন, তখন সেটা তাঁর মন্ত্রীত্ব ও সরকারের পক্ষে একটা বোঝা হয়ে দাঁড়ায়৷ সেজন্য তিনি ‘‘প্রথমে দেশ, তারপর আমার দল, তারপর আমি,” এই পন্থা অনুযায়ী কাজ করেছেন৷

চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল তাঁর দলীয় সতীর্থ শাভানকে ‘‘শিক্ষাক্ষেত্রে দেশের সর্বাধিক স্বীকৃত ও পরিচিত রাজনীতিক” বলে বর্ণনা করেছেন৷ বার্লিনে শিক্ষামন্ত্রী হয়ে আসার আগে আনেটে শাভান দশ বছর ধরে বাডেন-ভ্যুর্টেমবের্গ রাজ্যের সংস্কৃতি মন্ত্রী ছিলেন৷ তিনি গভীর বিষাদের সঙ্গে শাভানের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন, বললেন ম্যার্কেল৷ শাভানের পদত্যাগ যে তাঁর কাছে অন্য যে কোনো মন্ত্রীর পদত্যাগের মতো নয়, সেটা তাঁকে দেখেই বোঝা যাচ্ছিল৷ বহু বছর ধরে তাঁরা পরষ্পরের ঘনিষ্ঠ এবং বন্ধুসুলভ৷ ‘‘বন্ধুত্বের সঙ্গে সরকারি কর্মকালের কোনো সম্পর্ক নেই, বন্ধুত্ব তার পরেও বেঁচে থাকে,” উভয়ের ভবিষ্যৎ সম্পর্কের ব্যাপারে মন্তব্য করেছেন শাভান৷ তিনি সংসদ সদস্য থাকবেন এবং আগামী সেপ্টেম্বরে আবার নির্বাচন প্রার্থী হবেন৷

আনেটে শাভানের পর শিক্ষামন্ত্রী হচ্ছেন ইওহান্না ওয়াঙ্কা

অপরদিকে সংসদীয় নির্বাচনের ঠিক আট মাস আগে আঙ্গেলা ম্যার্কেলকে আবার তাঁর মন্ত্রিসভা ঢেলে সাজাতে হবে৷ শাভানের উত্তরসূরি হবেন ৬১ বছর বয়সি সিডিইউ রাজনীতিক ইওহান্না ওয়াঙ্কা, ইনিও মহিলা৷ ইনিও ব্রান্ডেনবুর্গ ও তারপরে নিম্ন স্যাক্সনিতে শিক্ষা ও গবেষণা মন্ত্রী ছিলেন৷ ওয়াঙ্কার ডক্টর উপাধি অঙ্কশাস্ত্রে৷ নিম্ন স্যাক্সনিতে সরকার বদল হতে চলেছে৷ কাজেই তিনি অন্য কোথাও বাঁধা নেই৷

তবে আনেটে শাভানের ম্যার্কেল সরকার ও মন্ত্রিসভায় বিস্তর প্রভাব ছিল৷ স্বভাবে তিনি শান্ত ও বিশ্বস্ত৷ চ্যান্সেলরের যে ক’জন বিশ্বাসী সহযোগী আছেন, তাদের মধ্যে সর্বাগ্রে শাভানের নাম করতে হয়৷ ম্যার্কেল যখন সংসদে বিরোধী গোষ্ঠীর প্রধান, সে আমল থেকেই শাভান তাঁর সঙ্গে যোগ দেন৷

[youtube_sc url=”https://www.youtube.com/watch?v=NU7Vt9hnvKc”]

২০০৫ সালে ম্যার্কেল শাভানকে তাঁর মন্ত্রিসভায় আনেন৷ তিনি জার্মানিকে গবেষণাক্ষেত্রে বিশ্বসেরা করে তোলার জন্য যথেষ্ট করেছেন, তাঁর আমলে শিক্ষা মন্ত্রকের বাজেট বেড়েছে বৈ কমেনি৷ এমনকি শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে তাঁর কাজ বিরোধীদলগুলির কাছ থেকেও সপ্রশংস স্বীকৃতি পেয়েছে৷

এটা সংসদীয় নির্বাচনের বছর না হলে ম্যার্কেল এতো সহজে শাভানকে বিদায় দিতেন কিনা বলা শক্ত৷ ডক্টরেট থিসিস নকল করার অভিযোগে এর আগেও জার্মানির একাধিক উঠতি রাজনীতিককে তাঁদের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ খোয়াতে হয়েছে – যেমন সিএসইউ কিংবা এফডিপি দলের৷ প্রবীণ, অভিজ্ঞ এবং সফল রাজনীতিকদের মধ্যে আনেটে শাভানই প্রথম যৌবনের একটি প্রমাদের জন্য তিন দশক পরে এত বড় মূল্য দিতে বাধ্য হলেন৷

Source: DW.de

Print Friendly, PDF & Email