জার্মানির বিখ্যাত রাস্তাগুলো

 

জার্মানিতে ক্যালিফোর্নিয়ার হাইওয়ে ১-এর মতো নামকরা কোনো রাস্তা নেই, তবে এখানেও রয়েছে কিছু বিখ্যাত রাস্তা৷ যে রাস্তাগুলোর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য পর্যটকদের দৃষ্টি কাড়ে সর্বদাই৷ আজ আপনাদের সামনে সেরকমই কয়েকটি রাস্তার খবর তুলে ধরা হবে।

জার্মান ওয়াইন স্ট্রিট

জার্মানির সবচেয়ে পুরনো রাস্তা, যেটা জার্মানির ওয়াইন উৎপাদন এলাকা অবধি গেছে, সেটা ফ্রান্সের সীমান্তের কাছে অবস্থিত৷ ৮৫ কিলোমিটার লম্বা এই রাস্তাটির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় পর্যটকরা জার্মানির ওয়াইন সংস্কৃতি উপভোগ করতে পারেন৷ মার্চ মাস থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত চলে সেখানে ওয়াইন উৎসব, যার মধ্য দিয়ে জার্মানদের আতিথেয়তা বোঝার সুযোগ রয়েছে পর্যটকদের৷

জার্মানির রূপকথার রাস্তা

বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় বহু রূপকথারই জন্ম জার্মানিতে৷ ইয়াকব আর ভিলহেল্ম গ্রিম – জার্মানির বিখ্যাত এই গ্রিম ভাতৃদ্বয় ছিলেন হানাউ শহরের বাসিন্দা৷ সেখানে, ঠিক যেখানে তাঁদের স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করে হয়েছে, সেখান থেকেই শুরু হয়েছে রূপকথার রাস্তাটি৷ এছাড়াও রয়েছে আটটি প্রাকৃতিক পার্ক এবং অসংখ্য গ্রাম, যেখানে রূপকথার গল্প বলার ব্যবস্থা রয়েছে, রয়েছে একটি মিউজিয়ামও৷

ব্ল্যাক ফরেস্ট হাই স্ট্রিট

ব্ল্যাক ফরেস্টের ‘ফ্রয়ডেনস্টাট’, যার বাংলা করলে বলা যায় – ‘আনন্দের শহর’৷ আর এই শহর থেকে শুরু হয়েই বাডেন বাডেন এবং গ্যার্বিগ্সব়্যুকেনের ওপর দিয়ে চলে গেছে এই লম্বা রাস্তাটি৷ এই রাস্তার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখা যায় রাইন উপত্যকা ও ফ্রান্সের এলসাস পর্যন্ত৷ সূর্যাস্তের সময় জার্মানির মুমেল হ্রদের কাছাকাছি তোলা ছবিটির এমন সুন্দর দৃশ্য পর্যটকদের কাছে খুবই আকর্ষণীয়৷

জার্মানির ফুটবল রুট

জার্মানির সবচেয়ে বড় রাজ্য নর্থ রাইন ওয়েস্টফেলিয়ার বেশ কিছু রাস্তা ১৫টি শহরকে সংযুক্ত করেছে৷ সেখানকার স্টেডিয়ামগুলো যে গির্জার মতো পবিত্র৷ মানে ফুটবলের একেবারে আসল ‘হাব’ এটি৷ প্রতিটি শহরেই একটি করে ফুটবল স্টেডিয়াম আছে৷ তাই দ্রুত সাইকেল চালিয়ে সহজেই জার্মানির বিখ্যাত ফুটবল রুটে পৌঁছে যাওয়া যায়৷ বিয়ারের মতো জার্মানরা যে ফুটবল পাগলও!

জার্মান আল্পস স্ট্রিট

এই রাস্তাটি পর্বতমালা আল্পসকে উৎসর্গ করা হয়েছে৷ ৪৫০ কিলোমিটার লম্বা এই পথ জার্মানির দক্ষিণাঞ্চল থেকে শুরু হয়ে পাহাড়, বোডেন লেকসহ বিভিন্ন ছোট-বড় হ্রদ, লিন্ডাও দ্বীপ – এ সব পার হয়ে একেবারে ক্যোনিগ লেক পর্যন্ত গেছে৷

শিল্প-সংস্কৃতির রাস্তা

যাঁরা এর আগে প্রাসদ, দূর্গ বা যথেষ্ট প্রকৃতি দেখেছেন তাঁদের জন্য এই শিল্প-সংস্কৃতির রাস্তা অবশ্যই কিছুটা বৈচিত্র আনবে৷ ৪০০ কিলোমিটার লম্বা এই রাস্তায় জার্মানির রূঢ় অঞ্চলের ভগ্নাবশেষ রয়েছে, যা গোটা এলাকাকে একটি সাংস্কতিক অঞ্চলে রূপান্তরিত করেছে৷ এ অঞ্চলের প্রাচীন কয়লা খনি ইউনেস্কোর বিশ্ব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে৷

সূত্র~ ডয়েচে ভেলে বাংলা

#BSAAG_Miscellaneous

#BSAAG_DW_Articles

Print Friendly, PDF & Email