• Home »
  • VISA »
  • কি কি কারনে আপনার ভিসা আবেদন রিফিউজ/প্রত্যাখ্যাত হতে পারে, আগস্ট ২০১৫

কি কি কারনে আপনার ভিসা আবেদন রিফিউজ/প্রত্যাখ্যাত হতে পারে, আগস্ট ২০১৫

 

চলতি সেমিস্টারে অনেকেই ভিসা ইন্টার্ভিউ দিচ্ছেন। তাদের অনেকেই গ্রুপে প্রশ্ন করছেন বা পার্সোনাল ভাবে ম্যাসেজ দিয়ে জানতে চাচ্ছেন ভাই,

আমার CGPA কম, আমার থাকার যায়গা ম্যানেজ হয়নি, আমার স্টাডি গ্যাপ আছে আমার কি ভিসা হবে! ইত্যাদি ইত্যাদি

তাদের জন্য এই পোষ্টটা কাজে লাগবে আশা রাখি। চলুন এবার দেখে নেয়া যাক, কি কি কারনে আপনার ভিসা আবেদন রিফিউজ/প্রত্যাখ্যাত হতে পারে।


********************************* ****************************
• আবেদনকারীর আইইএলটিএস, টোফেল, জিআরই অথবা স্যাটে প্রয়োজনীয় টেস্ট স্কোর (প্রযোজ্য হলে) যদি না থাকে।
• আবেদনকারী বিদেশে পড়াশোনা করতে যাচ্ছেন, তা নিশ্চিত না হলে। শিক্ষার্থী অর্থ উপার্জনের উদ্দেশ্যে যাচ্ছেন এমন সন্দেহ তৈরি হলে ভিসা দেয় না কর্তৃপক্ষ।
• টিউশন ফি, থাকা-খাওয়া এবং অন্যান্য ব্যয়ভার বহনের আর্থিক সচ্ছলতার ‘সঠিক’ কাগজপত্র না থাকলে।
• ভিসা অফিসার যদি মনে করেন পড়াশোনা শেষে শিক্ষার্থীর বাংলাদেশে ফিরে আসার সম্ভাবনা নেই অথবা শিক্ষার্থী বিদেশে অভিবাসী হওয়ার উদ্দেশ্যে যাচ্ছেন।
• আবেদনকারীর কোনো আইনি ঝামেলার প্রমাণ পেলে।
• ভিসা কর্মকর্তাকে কোনো মিথ্যা তথ্য দিলে।
• ভিসা অ্যাপয়েন্টমেন্ট ফরমে কোনো মিথ্যা বা ভুল তথ্য দিলে।
• আবেদনকারী যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির অনুমতি পেয়েছেন, সে প্রতিষ্ঠানটির অনুমোদন না থাকলে।
• আবেদনকারী যে বিষয়ে পড়াশোনা করতে যাচ্ছেন, সে বিষয়ে কিংবা এর ‘প্রয়োগ ক্ষেত্র’ সম্পর্কে যথাযথ ধারণা না থাকলে। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় এবং এর অবস্থান সম্পর্কেও ধারণা থাকতে হবে।
• কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট কোনো কাগজপত্র দেখতে চাইলে তা দেখাতে ব্যর্থ হলে।
• ভিসা সাক্ষাৎকারে অপরিচ্ছন্ন, অশালীন পোশাক পরে গেলে, সাক্ষাৎকারের আদবকেতা না মানলে কিংবা আচরণগত কোনো সমস্যা দেখা গেলে।
• ভিসা সাক্ষাৎকারের বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ইংরেজিতে প্রশ্ন করা হয়, ঠিকঠাক উত্তর দিতে না পারলে। প্রশ্নের জবাব সংক্ষিপ্ত হওয়াই ভালো, অপ্রাসঙ্গিক জবাব ভিসা কর্মকর্তার বিরক্তির উদ্রেক করবে এবং এতে প্রশ্নের সংখ্যা বাড়বে।
• স্টাডি গ্যাপ থাকতেই পারে, তবে তার কারন যথাযথ ভাবে বুঝিয়ে বলতে না পারলে সমস্যা হবার কথা না।


** সুখবর হল এ্যাম্বাসি এই সেমিস্টারে খুব ভাল রেসপন্স দিচ্ছে । মাত্র ৫-৬টা প্রশ্ন করেই বলে ok…thank you… । কারও কারও ক্ষেএে অবশ্য ১০ টা পর্যন্ত প্রশ্নও করেছে..তবে সেটা সংখ্যায় কম।

                       ****** সবার জন্যই অগ্রিম শুভকামনা রইল *****

পোস্টটি প্রথম প্রকাশ হয়েছে- http://on.fb.me/1F3NUs7

লিখেছেনঃ আসাদ আহমেদ খাঁন। http://bsaagweb.de/volunteer-asad-ahmed-khan/

স্বেচ্ছাসেবী- বিসাগ বাংলাদেশ

Print Friendly, PDF & Email