মানহাইমঃ বর্গক্ষেত্রের শহর।

 

দ্বিতীয় দর্শনের প্রেম হল মানহাইম। সর্বপ্রথম আপনি এখানকার হিম ধূসর দেয়াল সমৃদ্ধ ভবনগুলো দেখে মুগ্ধ হবেন। তারপর আপনি শহরের চারুত্ত  এবং সৌন্দর্যে বিমোহিত হবেন। “Söhne Mannheims” ব্যান্ড তাদের গান “Meine Stadt”  (আমার শহর) এ গেয়েছেন “Believe me, I’m staying here” এবং আসলেই তাই। Continue reading

Print Friendly, PDF & Email

বার্লিনঃ পড়ার জন্য, শুধু চাকরির জন্য নয়।

 

একটা ছেলে আমাকে মেসেজ দিয়ে বলল, ভাইয়া বার্লিনে যেতে চাই, আপনার কি মতামত।
আমি বলি, বার্লিনেই কেন? অন্য কোথাও চেষ্টা করনি?

-ওখানে অনেক জব পাওয়া যায়। চাকরি করে সব খরচ তুলে ফেলা যাবে। দেশেও টাকা পাঠানো যাবে। জার্মানি মানেই তো প্রথমেই বার্লিন। আপনি কি বলেন?

আমি একটা দীর্ঘ নিঃশ্বাস ফেলে বলি, বার্লিনের চেয়েও অনেক ভাল শহর আছে। আমি নিজে হলে আগে বার্লিন বাদ দিয়ে অন্য শহর খুঁজতাম। এখানে ভাল পছন্দমতো বিষয় পেলে অন্য কথা। তবে চাকরি পাওয়া সহজ এই যুক্তিতে বার্লিন যাওয়া ঠিক হবে না। Continue reading

Print Friendly, PDF & Email

ব্রেমেন: উত্তরের সবুজ নগরী

 

ব্রেমেন শহর এর চেয়ে বেশী বহুমুখী হতে পারে না, এখানে শহুরে ও গ্রামীণ জীবনযাত্রা একসাথে মিশে রয়েছে। এখানে শিক্ষার্থীদের খুব স্পন্দনশীল উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়, তবে আপনি জনবহুল রাস্তায় হারিয়ে যাবেন না। Weser নদী আপনার দোরগোড়ায় অবস্থিত, প্রতিটি জেলা আমোদজনক সব ক্যাফেতে পূর্ণ এবং সেখানে প্রচুর সাংস্কৃতিক কার্যক্রম চলতে থাকে। ব্রেমেন আধুনিক জীবনধারার সঙ্গে সবুজে ঘেরা একটি শহর।

Continue reading

Print Friendly, PDF & Email

ইয়েনাঃ শিক্ষার্থীদের জন্য একটি স্বর্গীয় জায়গা

 

শিক্ষার্থী হিসেবে ইয়েনার এই সবুজ শহরটিতে আপনি হেটে হেটে ঘুরতে পারেন ও এখানকার ‍সংস্কৃতির সাথে পরিচিত হতে পারেন। একজন শিক্ষার্থীর  যা কিছু প্রয়োজন তার সবই এখানে বিদ্যমান রয়েছে। এখানকার ইউনিভার্সিটিগুলো খুবই উন্নত সুযোগ সুবিধা প্রদান করে থাকে ও শিক্ষার্থীদের অবসর সময়টাকে ভালভাবে উপভোগ করে কাটানোর জন্য রয়েছে বেশকিছু পার্ক্, ক্যাফে, থিয়েটার ও জাদুঘর।

Continue reading

Print Friendly, PDF & Email

ড্রেসডেনঃ আধুনিক প্রযুক্তি ও ঐতিহাসিক শিল্পকলায় প্রযুক্ত শৈলী

 

আপনি যেখানেই তাকান, আপনি ড্রেসডেনের ঘটনাবহুল ইতিহাসের প্রমান দেখতে পাবেন। ঐতিহাসিক শিল্পকলায় প্রযুক্ত স্থাপত্য ও শহরের মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত এলবে নদী ড্রেসডেন শহরকে অপরূপ সৌন্দর্যে সজ্জিত করেছে। শহরটি বিশ্ববিখ্যাত বিস্তৃত দৃশ্য দেখার সুযোগ করে দেয় যা আপনি অন্য কোথাও পাবেন না।স্বনামধন্য  বিশ্ববিদ্যালয় ও আধুনিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো এখানে লেখাপড়ার আদর্শ এক পরিবেশ তৈরি করেছে। Continue reading

Print Friendly, PDF & Email