এজেন্সির প্রতারণা থেকে সাবধান

 

প্রতি বছর বাংলাদেশ থেকে জার্মানিতে পড়তে আসা ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা বাড়ছে৷ তবে সঠিক তথ্যের অভাবে অনেকেই দালালদের হাতে পড়ে প্রতারিত হচ্ছেন৷ জার্মানিতে পড়তে আসা বাংলাদেশিরা কী বলছেন এই বিষয়ে?

এজেন্সির প্রতারণা

উচ্চশিক্ষার জন্য জার্মানির কদর এখন দিন দিন বাড়ছে৷ গত কয়েক বছরে জার্মানিতে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সংখ্যা অনেক বেড়েছে৷ ব্যাচেলর, মাস্টার্স এবং পিএইচডি প্রোগ্রামে এখন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা অনেক বেশি সংখ্যায় আবেদন করছেন৷ তবে সমস্যা হলো বাংলাদেশ থেকে অনেকেই এই আবেদনগুলো করে থাকেন বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে৷ আর এইসব দালালদের খপ্পরে পড়ে প্রতারিত হন অনেক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী৷ এই ব্যাপারে বন রাইনজিগ ইউনিভার্সিটি অফ অ্যাপ্লায়েড সায়েন্সের ছাত্র রবিউল হোসেন বলেন, ‘‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সঙ্গে এইসব মিডিয়ারো কোন যোগাযোগ নেই৷ আর তারা ল্যাংগুয়েজ সেন্টারের কথা বলে যে টাকাটা নেয় সেটাও ভুয়া৷ কারণ এইখানে আমাদের মত আইটি কিংবা বায়োমেডিক্যাল সায়েন্স নিয়ে যারা পড়াশোনা করছে তাদের জার্মান ভাষার প্রয়োজন হয় না৷ এজেন্সিগুলোর ভুয়া তথ্যের ওপর নির্ভর করে অনেক ছাত্র প্রতারিত হয়৷”

ইন্টারনেটেই তথ্য

বাংলাদেশের অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তথ্য-প্রযুক্তি সম্পর্কে খুব একটা অবগত নয়৷ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জরুরি তথ্য সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটেই দেওয়া থাকে, তবে অনেক শিক্ষার্থী এই বিষয়ে উদাসীন থাকায় তারা দালালদের কাছে যান৷ এই সম্পর্কে একই বিশ্ববিদ্যালয়ে রোবটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর ছাত্র হাসান আল বান্না বলেন,‘‘বাংলাদেশি ছাত্রছাত্রীদের সমস্যা হলো তারা জানে না কোথায় গিয়ে বলতে হবে৷ ছোটবেলা থেকে আমি ইন্টারনেটে ঘাটাঘাটি করতাম৷ তাই আমি নিজেই ইন্টারনেটে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে খোঁজ করেছি এবং আমি নিজেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তির প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছি৷”
.
আয়ের সুযোগ
.
শিক্ষার্থীদের সরলতার সুযোগ নিয়ে অনেক এজেন্সি ছাত্রদের বৃত্তি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে তাদের প্রতারিত করে৷ অথচ বিশ্বের ভালো বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কখনোই এই ধরনের এজেন্সির সঙ্গে যুক্ত থাকে না, বলেন আখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবদুল্লাহ আল মামুন৷ বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ছাত্রছাত্রীদের জন্য নানা আর্থিক সুযোগ-সুবিধা দেওয়া থাকে৷ তবে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা অনেকেই এইসব বিষয় জানেন না বলে তারা অনিশ্চয়তায় ভোগেন, এমনই মত আবদুল্লাহ আল মামুনের৷
                                                                      উচ্চশিক্ষার জন্য জার্মানির কদর এখন দিন দিন বাড়ছে
.
তিনি বলেন, ‘‘আমার আখেন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পর দেখেছি শিক্ষার্থীদের জন্য সেখানে অনেক সুযোগ সুবিধা রয়েছে যেখান থেকে তারা পড়াশোনার খরচ চালাতে পারে৷ অথচ বেশিরভাগ বাংলাদেশি ছাত্রছাত্রী দেশে থাকতে এইসব খবর রাখে না৷ তাই এই খবরগুলো যদি সংবাদ মাধ্যমগুলোতে আসতো তাহলে অনেকের জন্য উপকার হতো৷” এছাড়া শিক্ষার্থীদের প্রতারণার হাত থেকে বাঁচাতে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উচিত পরামর্শ কেন্দ্র চালু করা, যেখান থেকে শিক্ষার্থীদের বিদেশে পড়াশোনার ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য দেওয়া হবে, বললেন কম্পিউটার সায়েন্সের ছাত্র মামুন
.
প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সোর্সঃ dw.de

এজেন্সির ব্যাপারে আরো পড়ুনঃ

স্বপ্ন ও বাস্তবতা পর্ব ১: http://bsaagweb.de/newsletter_april2013/
স্বপ্ন ও বাস্তবতা পর্ব ২: http://bsaagweb.de/newsletter_may2013/
স্বপ্ন ও বাস্তবতা পর্ব ৩: http://bsaagweb.de/newsletter_june2013/
স্বপ্ন ও বাস্তবতা পর্ব ৪: http://bsaagweb.de/newsletter_july2013/
স্বপ্ন ও বাস্তবতা পর্ব ৫: http://bsaagweb.de/newsletter-august-2013/
স্বপ্ন ও বাস্তবতা পর্ব ৬: http://bsaagweb.de/newsletter-september-2013/
স্বপ্ন ও বাস্তবতা পর্ব ৭: http://bsaagweb.de/newsletter-october-2013/

Print Friendly