জার্মানির ডায়েরিঃ২৪ “ফিহা এবং কিছু সমীকরণ”

 

প্রথম সমীকরণ

আমাদের বড় মেয়ে এহার মায়ের গর্ভে আসার ঘটনা যখন জানা গেল, সেদিন আমি কি একটি কাজে অন্য শহরে। সন্ধ্যায় হোটেলে ফিরে প্রথম বাবা হতে যাবার খবরটি পেলাম। প্রথম বার বলে বোধকরি, এই খবরটি শুনে কিছুই অনুভব করতে পারলাম না। কোথাও অনেক মানুষের ভিড় ভেঙে যখন সবাই হঠাৎ একসাথে পালাতে চায়, তখন কেউই বের হতে পারে না। হুড়োহুড়িতে জটলা লেগে যায়। বাবা হতে যাবার প্রথমবারের খবরটি অনেকটা এরকম ছিল। কয়েক হাজার অনুভূতি একসাথে মাথার ভেতরে জট পেকে গেল। Continue reading

জার্মানির পথেঃ১৬ জার্মানিতে মাইগ্রেশন, আসছে চমকপ্রদ নতুন আইন, ২০১৮

Featured

 

বিংশ শতাব্দীর প্রথমভাগে যখন আমরা জার্মানিতে আসি, তখন অবস্থাটা একেবারেই বিরূপ ছিল। পড়া শেষ করে চাকরি পাওয়া ছিল কঠিন। কাজ পাওয়ার চেয়ে বেশি কঠিন ছিল কাজের অনুমতি পাওয়া। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যেত, যারা পড়াশোনা শেষ করে সাথে সাথে কাজ পায়নি, তাদেরকে কাজ খুঁজে পাবার আগে দেশ ত্যাগ করতে হয়েছে। অনেকেই শুধুমাত্র ভিসা পাওয়ার জন্য ইচ্ছে করে পড়া সমাপ্ত করত না, যতদিন না যুতসই একটা কাজ খুঁজে পাচ্ছে। আমার মনে আছে, ২০০৪ সালে জার্মানি থেকে সিংহভাগ ছেলেমেয়ে পড়া শেষ করে দেশে ফিরে যেতে বাধ্য হয়েছিল। সেই অবস্থা অবশ্য এখন রূপকথার গল্পের মতন ইতিহাস। Continue reading